বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হ’ত্যার পর বেশ কয়েক মাস পার হয়েছে। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) তার জন্ম’দিন। বড় ভাইয়ের জন্ম’দিনে ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ।

স্ট্যাটাসটি নিচে হু বহু তুলে ধ’রা হলো-
১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৮। রাত ৯টার কাছাকাছি। কুষ্টিয়ার একটা হাসপাতা’লে জন্ম হয় আবরার ফাহাদ রাব্বির। আজকে তার ২২ বছর পূর্ণ হতো; কিন্তু তা তো আর হলো না।

শুনেছি ছোটবেলায় জন্ম’দিন করা হতো আমাদের। কিন্তু বড় হওয়ার পর কখনো হয়নি। ভাইয়া এগুলো পছন্দ করতো না। তাই সাধারণত বাড়ির ভেতরেই আম’রা ৩ জন মিলে কিছু করতাম। কিন্তু বড় হওয়ার সাথে সেটা শুধুই তারিখে পরিণত হয়। আমাদের ভেতরে ভালো মিল থাকলেও কখনো লজ্জায় ভাইয়াকে জন্ম’দিনের উইশও করা হয়নি।

ও নিজেও করতে পছন্দ করতো না। কখনো করলেও খুশি হতো কিন্তু লজ্জায় তা প্রকাশ না করে একটা সিরিয়াস ভাব নিতো। মাঝে মাঝে হয়তো আম্মু কেক কিনে আনতো; সেটাই দুইজন কাটতাম। আর আম্মু রান্না করতো কিছু।আজ ৪ মাস হয়ে গেল ও আর নেই আমাদের মাঝে। বেঁচে থাকলে হয়তো আজকেও কিছু হতো না। হয়তো শুধু বন্ধুদের ট্রিট দিত।

একসাথে কেক কাটতো। কিন্তু সময় থাকতে তো আম’রা মূল্য বুঝি না। তাই এখন এই তারিখগুলোয় তোর অস্তিত্বের সাথে জড়িয়ে গেছে।শুধু একটা কথায় বলবো- যেখানে থাকিস ভালো থাকিস ভাইয়া। কখনো তো জন্ম’দিনে কিছু করতে পারলাম না।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ৭ অক্টোবর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা পি’টিয়ে হ’ত্যা করে। এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে চকবাজার থা’নায় মা’মলা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here