লা’শবাহী গাড়িটি এলাকায় পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে শো’কের ছায়া নেমে আসে। শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে সারিবদ্ধভাবে লা’শ রাখা হয়। স্থানীয় জনতা ও স্বজনদের কা’ন্না যেন থামছেই না। একের পর এক স্বজনরা জ্ঞান হা’রান।

জানাজার নামাজেও ঢলে পড়েন সন্তান হা’রানো বাবা আর ভাই হা’রানোর ক’ষ্টে ভাই। এই শো’কাহত ঘটনায় সান্ত্বনার বাণী যেন ‘নিশ্চুপ’, চারদিক স্থবির।এমন দৃশ্যই দেখা গেল ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজে’লার শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয় মাঠে।

নেত্রকোনা জে’লার দুর্গাপুর উপজে’লার কাকউরগড়া ইউনিয়নের শান্তিপুরে শনিবার ম’র্মান্তিক একই এলাকার ৪ জন পরীক্ষার্থী নি’হত হন।শালীহর হাজী আমির উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মো. আবু সাঈদ জানান, নি’হতরা হল গৌরীপুর উপজে’লার শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র রাকিবুল ইসলাম হৃদয়।

সে শালীহর গ্রামের রমজান আলী খানের পুত্র। গত বছর জেএসসির শিক্ষার্থী মো. আশরাফুল আলম। সে শালীহর গ্রামের আব্দুল হকের পুত্র। মাদ্রাসায় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ইয়াসিন মিয়া। সে মৃ’ত আবদুল মজিদের পুত্র। অপরজন হল তারাকান্দা উপজে’লার বিসকা গ্রামের ছমির উদ্দিনের পুত্র সাহাবুল ইসলাম। সে এবার শালীহর এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেয়।

নি’হতের জানাজার নামাজ বেলা ১১টায় উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। নি’হতদের পরিবারকে সান্ত্বনা জানাতে ছুটে আসেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ, উপজে’লা চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খান, পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম, ইউএনও সেঁজুতি ধর, উপজে’লা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান সোহেল রানা, সালমা আক্তার রুবী, সাবেক উপজে’লা চেয়ারম্যান আলী আহাম্মদ খান পাঠান সেলভী, মইলাকান্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ।

নি’হতের সংবাদে ঘটনাস্থলে ছুটে যান গৌরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন। তিনি জানান, এ ইউনিয়নে একসঙ্গে এত লা’শের জানাজা এর আগে কখনও হয়নি। শো’কাহত পরিবারকে সান্ত্বনা দিতে গিয়ে তিনিও বারবার মূর্ছা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী পিকআপ ভ্যানের যাত্রী দাখিল পরীক্ষার্থী হারুন অর রশিদ জানান, পিকআপ ভ্যানটির সঙ্গে প্রথমে দ্রুতগামী লরির সং’ঘর্ষ হয়। তাতে পিকআপ ভ্যানের কিছু অংশ ভে’ঙে যায়। এ সময় ভ্যানের যাত্রী লাফিয়ে নামার পর দ্রুতগামী ট্রাক শিক্ষার্থীদের চা’পা দেয়। ঘটনাস্থলে দুই শিক্ষার্থীর জীবন পিষে দেয় ওই ঘা’তক ট্রাক।

দাখিল পরীক্ষার্থী আ’হত রুবেল মিয়া জানায়, সদ্য সমাপ্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শেষে শালীহর হাজী আমির উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়, শালীহর-এ মোতালেব বেগ দাখিল মাদ্রাসা, ভোকেশনালের পরীক্ষার্থীসহ আশপাশের ৪৬ জন শিক্ষার্থী নিয়ে শনিবার পিকনিকে নেত্রকোনার দুর্গাপুরে যায়। দুটো পিকআপে সবাই ছিল। দু’র্ঘটনাকবলিত পিকআপে কতজন ছিল তা জানা নেই। রাত ৮টা ৪০ মিনিটের দিকে এ দু’র্ঘটনা ঘটে।

এ দিকে ইয়াছিনের লা’শ দেখেই জ্ঞান হা’রান তার মা রেহেনা খাতুন। স্বজনরা পানি ঢেলে জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করছেন। তারপরও সন্তান হা’রানোর ক’ষ্ট কোনোভাবেই ভুলতে পারছেন না রেহেনা খাতুন। জ্ঞান ফিরলে বারবার বকে যাচ্ছেন- ইয়াছিন, আমার ইয়াছিন; তোমরা আমার ইয়াছিনকে বুকে এনে দাও।

অপরদিকে রাকিবুল ইসলাম হৃদয়ের বাড়িতে গিয়ে দেখা আরও হৃদয়বিদারক দৃশ্য। মা সাফিয়া খাতুন, সন্তানের কাপড় বুকে নিয়ে বারবার হৃদয়কে খুঁজে যাচ্ছেন। পাশের মূর্ছা যাচ্ছেন তার স্বজনরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here